Breaking News

লালপুরে বেরিলাবাড়ী মাদ্রাসায় অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : শিক্ষা ছাড়া কোনো জাতি উন্নতি লাভ করতে পারে না। শিক্ষার আলোয় আলোকিত ব্যক্তি এবং জাতি সবসময় উন্নতি ও অগ্রগতির শীর্ষে অবস্থান করে। এরূপ শিক্ষিত শ্রেণিই সবসময় নের্তৃত্বের আসনে থাকে। আর শিক্ষা তখনই যোগ্যতাসম্পন্ন নাগরিক তৈরি করতে সক্ষম হবে যখন তা হবে উপযুক্ত এবং মানসম্পন্ন। নাটোরের লালপুর উপজেলার বেড়িলাবাড়ী দাখিল মাদ্রাসায় অভিভাবক সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

আজ বুধবার ( ৬মার্চ) সকাল ১১ টায় বেরিলাবাড়ী দাখিল মাদ্রাসায় হলরুমে শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষে অভিভাবক সমাবেশ, আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী হাফেজ মোঃ হোসাইন আলীর কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সূচনা করা হয়।

অত্র মাদ্রাসার সুপার অজিফা খাতুনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন,সহকারী মাওলানা শিক্ষাক রফিকুল ইসলাম, ক্বারী মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সাবদার আলী,আব্দুল মান্নান,আবু ইমাম। বক্তারা বলেন, এলেম মানে জ্ঞান, শিক্ষা মানে আচরণের পরিবর্তন। সব শিক্ষাই বিদ্যা কিন্তু সব বিদ্যা শিক্ষা নয়, যদি তা কার্যকরী বা বাস্তবায়ন করা না হয়। এলেম বা জ্ঞান যে কোনো মাধ্যমেই অর্জন করা যায়, অধ্যয়ন জ্ঞানার্জনের একটি পন্থা মাত্র। অধ্যয়ন তথা জ্ঞানচর্চা বা বিদ্যার্জন সব সময় শিক্ষার সমর্থক নয় । ইসলাম জঙ্গীবাদকে সমর্থন করেনা। একজন প্রকৃত মানুষ কখনো অন্যের ক্ষতিসাধন করতে পারেনা।

সহকারী সুপার মোহাঃ আসলাম আলী বলেন, মাদ্রাসা শিক্ষার উদ্দেশ্য হলো আমাদের সন্তানকে ইসলামী জ্ঞানে সুশিক্ষিত করে গড়ে তোলা। যে শিক্ষা আত্মশুদ্ধির বিকাশ ঘটায়, সমাজে একজন ভালো মানুষ হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে, মানুষকে সৎ ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলে এবং পরোপকারী, কল্যাণকামী ও আল্লাহর প্রতি অনুরাগী হতে সাহায্য করে, সে শিক্ষাই প্রকৃত শিক্ষা। ইসলামী শিক্ষা মানুষের অন্তরকে আলোকিত করে, অন্তর্দৃষ্টি উন্মোচিত করে, দূরদর্শিতা সৃষ্টি করে। সুতরাং যে জ্ঞানের মাধ্যমে মানুষের অন্তরকে হিংসা, বিদ্বেষ ও ঘৃণা থেকে মুক্ত করে, ভালোবাসায় পরিপূর্ণ করতে পারে সে শিক্ষাকেই প্রকৃত শিক্ষা বলা যায়।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী শিক্ষক আব্দুল খালেক। দোয়া পরিচালনা করেন, মোঃ সাবদার আলী।