Breaking News

ব্লুটুথ হেডফোন ফেটে তরুণের মৃত্যু

ডেস্ক নিউজ : ভয়ঙ্কর এক কাণ্ড ঘটেছে ভারতের রাজস্থানে। কথা বলতে বলতে কানে থাকা ব্লুটুথ হেডফোন ফেটে মৃত্যু হলো এক তরুণের। ২৮ বছর বয়সী ওই তরুণ জয়পুর জেলার চোমু শহরের উদয়পুরি গ্রামের বাসিন্দা। গতকাল শুক্রবার ওই ঘটনা বলে জানিয়েছে ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো।

পুলিশ জানিয়েছে, রাকেশ কুমার নাগর নামে ওই যুবক প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। বাড়িতে থাকাকালে কানে হেডফোন দিয়ে কথা বলছিলেন তিনি। সেইসময় হেডফোনের চার্জিং প্লাগ ইলেকট্রিক বোর্ডে লাগানো ছিল। হঠাৎ করে ডিভাইসটি ফেটে যায় এবং নাগর অজ্ঞান হয়ে যান। তাঁকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসা চলাকালীন তাঁর মৃত্যু হয়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, দুটো কানই বিস্ফোরণে নষ্ট হয়ে যায় তার।

পুলিশ জানিয়েছে, ডিভাইসটি ফেটে যাওয়ার পর জখম হয়ে অজ্ঞান হয়ে যান নাগর। তারপর হাসপাতালে নিয়ে আসতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান যুবক। গত ফেব্রুয়ারিতেই রাকেশের বিয়ে হয়েছিল, ভাইবোনদের মধ্যে সবচেয়ে বড় ছিলেন তিনি।

সিদ্ধিবিনায়ক হাসপাতালের ডা. লে এন রুন্ডলা জানান, নাগরকে অজ্ঞান অবস্থায় তার হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওইখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।