Breaking News

বাসায় স্বামী-স্ত্রীর জাল নোটের কারখানা

ডেস্ক নিউজ : রাজধানীতে একটি বাসায় জাল নোট তৈরির কারখানা পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। ওই বাসায় এক দম্পতি মিলে মাসে কোটি কোটি টাকা মূল্যের নোট তৈরি করতেন। এক হাজার টাকার ১০০ জাল নোটের বান্ডেল পাইকারিতে ১২-১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করতেন তারা।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের গুলশান বিভাগ সোমবার দুপুরে রাজধানীর বাড্ডার নুরের চালা সাঈদ নগরের একটি সাততলা বাড়ির ষষ্ঠ তলায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ জাল নোট উদ্ধার করেছে।

এ সময় বাসা থেকে আবদুর রহিম শেখ ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম এবং তাদের সহযোগী হেলাল খান, আনোয়ার হোসেন এবং ইসরাফিল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার মশিউর রহমান বলেন, কারখানা থেকে প্রায় ৪৩ লাখ টাকার জাল নোট ও এসব নোট তৈরির প্রচুর পরিমাণ উপকরণ পাওয়া গেছে। ঘরোয়া ওই কারখাটির মালিক রহিম ও ফাতেমা। তারা মাসে কোটি কোটি টাকার জাল নোট তৈরি করত।

তিনি বলেন, ফাতেমা ২০১৯ সালে হাতিরঝিল এলাকার একটি বাসায় জাল নোট তৈরির সময় অপর সহযোগীসহ হাতেনাতে আটক হলেও তার স্বামী রহিম পালিয়ে গিয়েছিল। এরা সবাই জাল নোট তৈরি ও মাদক কারবারে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিল।

মশিউর রহমান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে জাল নোট খুচরা এবং পাইকারি বিক্রি করার পাশাপাশি গত তিন বছর ধরে ঈদসহ অন্যান্য উৎসবের আগে জাল নোট তৈরি করে বাজারে ছাড়ার কথা তারা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।

তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হওয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান ডিসি।